‘ক্ষোভ ছিল ওর’, অভিষেকের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া ঋতুপর্ণার, কী বললেন প্রসেনজিৎ?

‘ক্ষোভ ছিল ওর’, অভিষেকের মৃত্যুতে প্রতিক্রিয়া ঋতুপর্ণার, কী বললেন প্রসেনজিৎ?

মার্চ ২৪, ২০২২ 0 By বিনোদন২৪.কম

গোটা বাংলা কাঁপিয়ে ছিল অভিষেক চ্যাটার্জী ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তরছবি ‘সুজন সখী’। পরিচালক স্বপন সাহা পরিচালিত এই ছবি বক্স অফিসে তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল। তবে শুধু এই ছবিই নয়, বহু ছবিতেই অভিষেকের সঙ্গে জুটি বেঁধে দর্শকদের মন জয় করেছেন ঋতুপর্ণা।
অভিনেতার প্রয়াণের খবর পেয়ে সেই স্মৃতিতেই যেন হারিয়ে গেলেন অভিনেত্রী। কান্না জড়ানো গলায় বললেন, এ খবর কি মিথ্যে হতে পারে না?

ঋতুর্পণা জানান, আসলে, পর পর এত মৃত্যু দেখছি, কী আর বলব! তবে কিছুতেই মেনে নিতে পারছি না অভিষেকের মৃত্যুটা। অভিষেক চ্যাটার্জী অবদান বাংলা সিনেমায় প্রচুর। অনেক ছবি করেছি ওর সঙ্গে। আমার জীবনের কিছু শ্রেষ্ঠ ছবি অভিষেকের সঙ্গেই। এখনও মনে আছে অভিষেক আর আমার সুজন সখী তোলপাড় ফেলে দিয়েছিল। এই ছবি আমার ক্যারিয়ারের প্রথম দিকের ছবি। শুধু কী তাই, যে ছবিটা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সম্পদ, ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘দহন’, যে ছবিটার জন্য জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিলাম, সেই ছবিতেও তো অনেকটা জুড়ে ছিল অভিষেক। ঋতুদা আমাকে বলেছিল, অভিষেক আমার খুব প্রশংসা করেছে। এরকমই মানুষ ছিলেন তিনি। মন খুলে কথা বলতেন। প্রচুর আড্ডা দিয়েছি একসঙ্গে। সব মনে পড়ে যাচ্ছে।

ঋতুপর্ণার কথায়, বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি যখন খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল, যারা সেই সময়টায় বাংলা সিনেমাকে ধরে রেখেছিলেন, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন অভিষেক। ওর মনের মধ্যে হয়তো অনেক ক্ষোভ ছিল, দুঃখ ছিল। সেগুলো না হয় থাক এখন। অভিষেক যেখানেই থাকুক, শান্তিতে থাকুক, ভাল থাকুক। এরকম অভিনেতাকে বাংলা সিনেমা কোনোদিন ভুলবে না।

ঋতুপর্ণা ও অভিষেককে নিয়ে ‘আমি সেই মেয়ে’ নামে এক ছবি পরিচালনা করেছিলেন প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী। এপার বাংলা ও ওপার বাংলাতে খুবই জনপ্রিয় হয়েছিল সেই ছবি। তবে টালিউডে একসময়ে গুঞ্জন উঠেছিল প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও অভিষেক চ্যাটার্জী মধ্যে সংঘাত নিয়ে। সেই গুঞ্জনে বারুদ ঢেলেছিল, অভিষেক এক সাক্ষাৎকার। সংবাদমাধ্যমকে অভিষেক নিজেই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির রাজনীতির কথা টেনে দুই সুপারস্টারের নাম করেছিলেন। অভিনেতার মৃত্যুতে সেই পুরোনো খবরই ফের ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

তবে অভিষেক চ্যাটার্জী প্রয়াণের খবরে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে প্রসেনজিৎ জানান, প্রতিক্রিয়া দেয়ার অবস্থাতে নেই। ওর বরকর্তা হয়েছিলাম আমি। সব মনে পড়ছে। ওর সঙ্গে ভাল স্মৃতিগুলোই মনে রাখতে চাই।