ব্রেসলেট পরার কারণ জানালেন সালমান খান

ব্রেসলেট পরার কারণ জানালেন সালমান খান

জানুয়ারি ৪, ২০২২ 0 By বিনোদন২৪.কম

সালমান খানের ডান হাতে সব সময়ই দেখা যায় একটি ব্রেসলেট। একমাত্র ফিল্মের চরিত্রের প্রয়োজনে কখনো সেই ব্রেসলেটটি হাতছাড়া করতে বাধ্য হন সালমান। না হলে দিনরাত নাকি তিনি সেটি পরেই থাকেন!

ডান কবজি ছাড়িয়ে প্রায় হাত খুলে বেরিয়ে যাওয়া সালমানের ওই ব্রেসলেটি কেন তার সব সময়ের সঙ্গী? বিষয়টি খোলসা করেছেন সালমান খান নিজেই।

কেন ব্রেসলেট পরেন সালমান? সালমানের বহু ভক্তের কাছে তা অজানা থাকলেও ‘গুরু’র দেখাদেখি তারাও ব্রেসলেট পরতে শুরু করে দিয়েছেন। তা সে তাদের ব্যক্তিত্বের সঙ্গে যতই বেমানান হোক না কেন!

এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে সালমান জানান, বাবার কাছে থেকে ব্রেসলেটটি উপহার হিসেবে পেয়েছিলেন তিনি। সালমানের কথায়, “ছোটবেলা থেকেই দেখেছি, সব সময় এ রকমই একটা ব্রেসলেট পরে থাকতেন বাবা। সে সময় ভাবতাম, ব্রেসলেট পরে বাবাকে কী ‘কুল’ই না লাগছে! বাচ্চারা যেমন সব কিছু নিয়ে খেলাধুলা করে, আমিও বাবার ব্রেসলেটটা নিয়ে খেলতাম।”

বাবার ব্রেসলেটটি পছন্দ হলেও ছোটবেলায় সেটি সালমানের হাতে আসেনি। তার জন্য দীর্ঘ দিন অপেক্ষা করতে হয়েছে। সালমান বলেছেন, “ছোটবেলায় ব্রেসলেট পরতাম না। তবে বলিউডে কাজ শুরু করার পর বাবা আমাকে একেবারে নিজের ব্রেসলেটের মতো দেখতে একটি ব্রেসলেট উপহার দেন। সেই থেকে এটা আমার সঙ্গেই রয়েছে।”

নিজের ডান হাতের ব্রেসলেটটিকে সৌভাগ্যের প্রতীক বলে মনে করেন সালমান। বিদেশি সাংবাদিকদের কাছে তিনি বলেছেন, “আমার ব্রেসলেটের মধ্যে এই যে পাথরটা দেখছেন, একে ফিরোজা বলে। এ রকম ধরনের পাথর দু’টিই রয়েছে। একটা হলো আকিক আর একটা ফিরোজা। এই ফিরোজাটি হলো নীলকান্তমণি।

ব্রেসলেটের পাথরটি নিয়ে একটি বদ্ধমূল ধারণাও রয়েছেন সালমানের। তার দাবি, ‘‘সব নেতিবাচক মনোভাব বুঝে নেয় ফিরোজা।” পাশাপাশি আরও একটি দাবি করেছেন তিনি। বলিউডের সুপারস্টারের কথায়, ‘‘প্রত্যেকবার অশুভ কিছুর মুখোমুখি হলে তা বুঝতে পারে ফিরোজা।”

সালমান জানিয়েছেন, বেশ কয়েকবার তার ব্রেসলেটের পাথরে চিড় ধরে গিয়েছে। তা যে অশুভ ঘটনার ইঙ্গিত, তা-ও মনে করেন সালমান। সেই সঙ্গে তার দাবি, ‘‘নেতিবাচক কোনও কিছু আমার দিকে ধেয়ে এলে এই পাথর তা আটকে দেয়। পাথরের শিরায় সেই অশুভ শক্তিকে শুষে নেয় ফিরোজা। সে কারণেই তাতে চিড় ধরে যায়।’’