রোজিনার মুক্তি চাইলেন শাকিব খান

রোজিনার মুক্তি চাইলেন শাকিব খান

মে ১৯, ২০২১ 0 By বিনোদন২৪.কম

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তার প্রতিবাদে এবং মুক্তির দাবিতে সরব নেট দুনিয়ার বাসিন্দারা। যার যার অবস্থান থেকে এ ঘটনার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিচ্ছে। পাশাপাশি রাস্তায় ব্যানার-পোস্টার নিয়ে দাঁড়িয়ে আন্দোলন করছে সাংবাদিক সমাজ। নেট দুনিয়ায় #FreeRozina এবং #JournalismIsNotACrime লিখে রোজিনার পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকেই।

অকুতোভয় সাংবাদিক রোজিনার মুক্তি চেয়ে সাংবাদিকদের পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিচ্ছেন শোবিজের তারকারাও। বুধবার (১৯ মে) বেলা ২টায় বাংলা চলচ্চিত্রের সুপারস্টার চিত্রনায়ক শাকিব খানও পোস্ট দিয়েছেন। ওই পোস্টে শাকিব রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তি চেয়েছেন।

শাকিব খানের ভেরিফায়েড অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে পোস্ট করা সেই লেখাটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো, ‘দুদিন ধরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের কয়েকটি স্থিরচিত্র দেখছি আর বিস্মিত হচ্ছি। দেশ ও বিশ্ব গণমাধ্যমে তাকে ঘিরে তৈরি প্রতিবেদনগুলো পড়ছি আর ভাবছি, আমার সোনার বাংলাদেশের ভাবমূর্তি কোথায় গিয়ে ঠেকেছে!

একজন সৎ সংবাদকর্মী তো কখনোই রাষ্ট্রের প্রতিপক্ষ নন; বরং তিনি সমাজ তথা দেশের দর্পণ হিসেবে কাজ করেন। দেশের উজ্জ্বলতম অনুসন্ধানী সাংবাদিকের এমন দশায় উদ্বিগ্ন হই, মনটা ভারাক্রান্ত হয়।
দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সঙ্গে সাংবাদিকতা করে রোজিনা ইসলাম দেশে ও দেশের বাইরে থেকে পেয়েছেন একাধিক পুরস্কার। এ পর্যন্ত তিনি যেসব অসঙ্গতি, দুর্নীতি জনগণের সামনে তুলে ধরেছেন; সেগুলোর সবই কাঠখড় পুড়িয়ে বের করে আনা তথ্য; যা বস্তুনিষ্ঠ এবং জনগণের মঙ্গলময়।

কিন্তু সুসাংবাদিকতা করতে গিয়ে রোজিনা ইসলাম যেভাবে হেনস্তার শিকার হয়েছেন তা মোটেও কাম্য নয়। এতে করে স্বাধীন সাংবাদিকতার পথকে সংকুচিত করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে রোজিনা ইসলাম যেন শতভাগ ন্যায়বিচার পান সেই কামনা করছি। #journalismisnotacrime’

শাকিব খান ছাড়াও দুদিন ধরে শোবিজের অনেক তারকাই রোজিনার মুক্তি চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিচ্ছেন। তালিকায় চঞ্চল চৌধুরী থেকে শুরু করে সঙ্গীতশিল্পী কোনালও আছেন। কোনাল তো রোজিনাকে একটি গানও করেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশের পর সেই গানটি এখন ভাইরাল।

চঞ্চল চৌধুরী তার ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, ‘করোনার কারণে আমরা যে মুখোশ পরা শুরু করেছি সে অভ্যাসটা চলমান থাক। কিন্তু আসুন, আসল মুখোশটা খুলে অন্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াই। দৃপ্তকণ্ঠে আওয়াজ তুলি, রোজিনা ইসলামের মুক্তি চাই।’

জয়া আহসান লিখেছেন, ‘রোজিনা সাংবাদিকতার দায়িত্ব পালন করতে গিয়েছিলেন, সিঁধ কাটতে নয়। দেখতে পেলাম হেনস্তার শিকার হয়ে তিনি মাটিতে পড়ে যাচ্ছেন। এই আমাদের আচরণ! এই আমাদের সভ্যতা! রোজিনার গলার ওপর চেপে বসা আঙুলগুলো গভীর অর্থময় এক প্রতীকের মতো লাগছে। মনে হচ্ছে, আঙুলগুলো কোনো ব্যক্তির গলায় নয়, বরং বাংলাদেশের বাকস্বাধীনতার কণ্ঠনালিতে চেপে বসেছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতেই এমন অশুভ একটি ঘটনা আমাদের দেখতে হলো? রোজিনাকে তার পরিবারের কাছে দ্রুত ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।’

সাংবাদিক রোজিনাকে সাহসিনী বলে উল্লেখ করেছেন মেহের আফরোজ শাওন। তিনি লিখেছেন, ‘অথচ তিনি নায়িকাদের ঈদ ফ্যাশন কিংবা সেলিব্রেটিদের প্রিয় রান্নার খবর ছেপে সেলফিময় ফেসবুক চালিয়ে যেতে পারতেন! কিন্তু এই সাহসিনী বেছে নিয়েছিলেন অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা। আর তাই আজকের এই পুরস্কার!’

নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী লিখেছেন, ‘কালকের ঘটনাটার মাঝে এক ধরনের মাস্তানির ভাব আছে! সাংবাদিক সমাজের উচিত এই বাড়াবাড়ি বা মাস্তানির ঘটনায় যারা জড়িত তাদের সবার বিচার নিশ্চিত করতে সোচ্চার থাকা! এবং রুটিন করে আগামী এক মাস স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব পর্যায়ের দুর্নীতি নিয়ে আরো বেশি বেশি রিপোর্ট করা! যা তারা থামাতে চেয়েছে, তাকে আরো জ্বালিয়ে দেয়াটাই হবে আসল উত্তর!’

সঙ্গীতশিল্পী এলিটা করিম নিজের প্রোফাইল পরিবর্তন করেছেন। রোজিনাকে নিয়ে কণ্ঠে প্রতিবাদী গান তুলেছেন সঙ্গীতশিল্পী কোনাল। গানের নাম ‘সত্য কন্যা রোজিনা’। কণ্ঠ দেয়ার পাশাপাশি কথা ও সুর করেছেন কোনাল নিজেই। কোনাল লিখেছেন, ‘আমার মা বলেছে, রোজিনাদের কলম কোনো দিন থামবে না! জয় বাংলা! রোজিনাকে মুক্ত করতে হবে। আর একটি কথাও শুনব না!’