‘অভিনয় জীবন নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই’

‘অভিনয় জীবন নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই’

এপ্রিল ২৭, ২০২১ 0 By বিনোদন২৪.কম

মোহাম্মদ ইকবাল খন্দকার, নাটক ও সিনেমার একজন নিবেদিত অভিনেতা। ২০০১ সালে ঢাকায় আসার আগে নিজ গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের রাজবাড়িতে ‘রাজবাড়ি থিয়েটার’র সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। সেখানে তিনি ‘খাঁচা’,‘ চৌদ্দ গোষ্ঠীর পিন্ডি’,‘ গ্রেফতারি পরোয়ানা’,‘ সেম সাইড’সহ আরো বেশকিছু নাটকে অভিনয় করেন।

মঞ্চ থেকে উঠে এসে ২০০১ সালে মিনহাজুর রহমানের নির্দেশনায় প্রথম ‘ঢোল’ নাটকে অভিনয় করেন ইকবাল। প্রথম নাটকে অভিনয় করেই সাড়া ফেলেন ইকবাল। এর পরপরই দিনি দীপংকর দীপনের নির্দেশনায় ‘ট্যাম্পু’ নাটকে অভিনয় করেন। নির্মাতাদের মধ্যে তাকে নিয়ে বেশ আগ্রহ জন্মায়। এরপর একে একে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, অনিমেষ আইচ, অঞ্জন আইচ, গিয়াস উদ্দিন সেলিম, মেজবাউর রহমান সুমন’সহ আরো অনেকের নাটকে অভিনয় করেন।

চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম অভিনয় করেন সামিয়া জামানের নির্দেশনায় ‘রানী কুঠির বাকী ইতিহাস’ নাটকে। এরপর একে একে নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর ‘গেরিলা’, তৌকীর আহমেদ’র ‘অজ্ঞাতনামা’, ‘হালদা’, দীপংকর দীপনের ‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘অপারেশন সুন্দরবন’, মেজবাউর রহমান সুমনের ‘হাওয়া’সহ ৯৪ টি সিনেমাতে অভিনয় করেন তিনি। বলা যায় চলচ্চিত্রে অভিনয়ে সেঞ্চুরীর পথে ইকবাল।

পেশাকে অভিনয় হিসেবে বেছে নিয়ে কতোটা সুন্তষ্ট আপনি, এমন প্রশ্নের জবাবে ইকবাল বলেন, ‘যে আশা যে স্বপ্ন নিয়ে আসলে অভিনয়কে পেশা হিসেবে বেছে নেয়া, সেই স্বপ্ন আর আশা পুরোটা পূরণ হয়নি। যে কারণে অভিনয় জীবন নিয়ে পুরোপুরি সন্তুষ্ট নই আমি। এক সময় অমিতাভ বচ্চন, মিঠুর চক্রবর্তী’র অভিনয় দেখেই অভিনয় করার ইচ্ছে জাগে মনে। এই দু’জন নায়কই আমার অভিনয়ের অনুপ্রেরণা। তাদেরকে অনুপ্রেরণায় রেখেই এখনো অভিনয় করে যাচ্ছি।’

এদিকে ইকবাল এরইমধ্যে চ্যানেল আইয়ের জন্য সবুজের নির্দেশনায় একটি ঈদ নাটকের কাজ শেষ করেছেন। এছাড়াও তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ মনির নির্দেশনায় ‘জনক ও সন্তান’ শিরোনামের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন।