আমজাদ হোসেনর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

আমজাদ হোসেনর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ডিসেম্বর ১৪, ২০২০ 0 By বিনোদন২৪.কম

প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার, প্রযোজক, নাট্যকার, গীতিকার, সুরকার, লেখক ও অভিনেতা আমজাদ হোসেনের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালের ১৪ ডিসেম্বর ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। তার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নিজ জন্মভূমি জামালপুরে এক শোক র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে।

আমজাদ হোসেন চর্চা কেন্দ্র, জামালপুরের উদীচী, খেলাঘরসহ ৭০টি সংগঠনের অংশগ্রহণে এ শোক র‌্যালিটি সকাল ১১টায় তামালতলা মোড় থেকে শুরু হয়ে আমজাদ হোসেন শায়িত পৌর কবরস্থানে গিয়ে শেষ হয়।

এ সময় শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের মাধ্যমে তার প্রতি শ্রদ্ধা জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বাদ আসর মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে এসব সংগঠনের পক্ষ থেকে।

সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হবে আমজাদ হোসেন স্মরণসভা। তার জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করবেন গণ্যমান্য ব্যক্তি ও ঘনিষ্ঠজন।

এ ছাড়া এদিন এফডিসিতে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির উদ্যোগে আমজাদ হোসেন স্মরণসভা, মিলাদ মাহফিল ও তবারক বিতরণের আয়োজন করা হয়েছে।

আমজাদ হোসেন ১৯৬১ সালে ‘হারানো দিন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় দিয়ে চলচ্চিত্র অঙ্গনে আসেন। পরে চিত্রনাট্য রচনা ও নির্মাণে মনোনিবেশ করেন। ১৯৬৭ সালে আমজাদ ‘আগুন নিয়ে খেলা’ নামে প্রথম চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। পরে তিনি ‘নয়নমণি’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘ভাত দে’র মতো চলচ্চিত্র নির্মাণ করে প্রশংসিত হন।

‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ ও ‘ভাত দে’ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন নির্মাতা আমজাদ হোসেন। এ ছাড়া শিল্পকলায় অবদানের জন্য তিনি একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কারও পেয়েছেন।

সাহিত্য রচনার জন্য এই নির্মাতা ১৯৯৩ ও ১৯৯৪ সালে দুবার অগ্রণী শিশু সাহিত্য পুরস্কার এবং ২০০৪ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন।

১৯৪২ সালের ১৪ আগস্ট জামালপুরে জন্মগ্রহণ করেন আমজাদ হোসেন। পঞ্চাশের দশকে ঢাকায় এসে সাহিত্য ও নাট্যচর্চার সঙ্গে জড়িত হন। তারপরই চলচ্চিত্রে আসেন।

এ ছাড়া আমজাদ হোসেন প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক এবং গল্পকার জহির রায়হানের অনেক ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন ও সহযোগি হিসেবে কাজ করেছেন।