স্বপ্ন ছিলো বিসিএস ক্যাডারের, হয়েছেন নির্মাতা

0
27

জন্ম রাজধানীর মিরপুরে, বেড়ে ওঠা উত্তরায়। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স পাশ করেন। ইচ্ছা ছিলো বিসিএস ক্যাডার হবেন। পাশাপাশি মিডিয়ার প্রতিও ভালোলাগা ছিল। সেই ভালোলাগা পরিণত হয় ভালোবাসায়। সেই ভালোবাসার মায়ায় যিনি সব স্বপ্নকে ছিন্ন করে শোবিজের পথেই হাঁটছেন। বলছি নির্মাতা রিদম খন শাহীনের কথা। বর্তমানে যিনি নির্নাণের পাশাপাশি চরিত্রাভিনেতা হিসাবেও কাজ করছেন।

শোবিজ যাত্রার শুরুটা হয়েছিল গুণী নির্মাতা কাজী হায়াতের হাত ধরেই। শুরুতে চলচ্চিত্রে অভিনয় করতেন। সময়টা ১৯৯৭-৯৮ সালে। অভিনয় করতে এসেই কাজী হায়াতের দেখে একজন নির্মাতা হওয়ার স্বপ্ন জাগে। সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজ শুরু করেন রাশেদ খান, শাহজাহান খানের সঙ্গে।

আর ২০০৬ প্রথম বিবেক নামের নাটক নির্মাণ করেন। রিদম খান শাহীন তার ক্যারিয়ারে প্রায় নব্বইটির মতো নাটক নির্মাণ করেছেন। এ সংখ্যা তিনি আরো কয়েকগুণ করতে পারতেন। কিন্তু ভালো গল্প না হলে নাটক নির্মাণ না করায় সংখ্যাটা একটু কমই। তবে তার ডিটেকশনে কাজ করেছেন দেশের সনামধন্য থেকে এ প্রজন্মের তারকারা।

রিদম খান শাহীন নাটকে অভিনয় করেছেন বিভিন্ন সময়ে। তবে মাঝে পাঁচ বছর অভিনয় করেননি। নতুন করে চলতি বছরের আবারো নাটকে অভিনয়ে ফিরেছেন। মাসুদ করিম সুজনের নির্দেশনায় কাজ করেছেন তরুনিমা নাটকে। এখানে তাকে ভিলেন রুপে দেখা মিলবে। নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন নাদিয়া আফরিন মিম ও সজল। নাটকটি শিগগিরই একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হবে।

এছাড়াও এরইমধ্যে কাজ করেছেন আরো একটি ধারাবাহিক নাটকে। নাম অভিবাসী। নাটকটির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রূপদান করেছেন তিনি। ধারাবাহিকটি নির্মাণ করেছেন এহসানুল হক সেলিম। আরো অভিনয় করেছেন মামুনুর রশীদ, বরদা মিঠু, সোহান আলম। এটিএন বাংলায় প্রচার হবে এটি।

অভিনয় নিয়মিত ও নির্মাণের বিষয়ে রিদম খান শাহীন বলেন, শুরুটা করেছিলাম অভিনয় দিয়ে। সেই জায়গা থেকে অভিনয় করা। তবে নির্মাতা হিসাবেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। গল্পে তুলে ধরতে চাই শিক্ষণীয় বিষয়, যা সুষ্ঠু সমাজ গঠনে সহয়তা করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here