ওয়েব সিরিজে জুটি বাঁধলেন রাজ-ফারিয়া

0
15

এবার ‘বিলাপ’ শিরোনামের একটি ডার্ক থ্রিলার ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করলো প্রোডাকশন হাউজ ‘কপ ক্রিয়েশন’। এর কাহিনী ও চিত্রনাট্য লিখেছেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ এবং ‘মিশন এক্সট্রিম’ (১ম ও ২য় খন্ড)-এর কাহিনী ও চিত্রনাট্যকার সানী সানোয়ার। যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ।

‘বিলাপ’-এর মাধ্যমে প্রথমবার ওয়েব সিরিজে অভিনয় করলেন শবনম ফারিয়া। শরিফুল রাজের সঙ্গে প্রথমবার জুটি বাঁধলেন এই অভিনেত্রী। ওয়েব সিরিজটিতে জাকিয়া বারী মম এবং রুনা খানকেও ব্যতিক্রমধর্মী দু’টি চরিত্রে দেখা যাবে।

‘হঠাৎ করেই ঢাকা শহর থেকে রহস্যজনকভাবে নিরুদ্দেশ হতে থাকে বেশ কয়েকজন শিশু ও নারী-পুরুষ এবং সেই সঙ্গে ঘটতে থাকে কয়েকটি লোমহর্ষ খুনের ঘটনা। পুলিশের স্পেশাল টিম শত চেষ্টা করেও যখন এসব অপরাধের কোন কুল খুঁজে পায় না, তখন চরম অদক্ষ হিসেবে পরিচতি সাব-ইন্সপেক্টর রাহাত সন্ধান পেয়ে যায় একটি ভয়ংকর গুপ্তঘাতক চক্রের। এরপর নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যাবে ওয়েব সিরিজটি।

এর গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আরো অভিনয় করেছেন লুৎফর রহমান জর্জ, খায়রুল বাশার, মাজনুন মিজান, মাসুম বাশার, ইনতেখাব দিনার, জয় রাজ, সমাপ্তি মাসুক, দীপু ইমাম, এহসান রহমান, আশরাফুল আশিষ, নবাগত পূজা ক্রুজ, নীলাঞ্জনা নীলা, সুমীত সেনগুপ্ত (স্পেশাল এপিয়ারেন্স) এবং আরো অনেকে।

লেখক ও পরিচালক সানী সানোয়ার বলেন, ওয়ার্ল্ড মিডিয়াতে সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজ একটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দখল করে নিচ্ছে। তাই দর্শক আগ্রহের উপর ভিত্তি করে ‘সিনেমাটিক’ নামের দেশিয় ওটিটি প্লাটফর্মের জন্য ‘বিলাপ’ নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এখন থেকে ‘কপ ক্রিয়েশন’ নিয়মিতভাবে সিনেমার পাশাপাশি ওয়েব সিরিজও নির্মাণ করবে।

শরিফুল রাজ বলেন, গল্প বলার স্টাইল আর নির্মাণ কৌশলের স্টাইল ফলো করে নির্মিত এই ওয়েব সিরিজটি হতে পারে এদেশের অন্যতম একটি সিরিজ। আশা করি আমাদের পরিশ্রমের এই ফসল দর্শক হৃদয় জয় করে নিতে পারবে।

জাকিয়া বারী মম বলেন, মৌলিক থ্রিলার গল্প নিয়ে এগিয়ে যাবে ‘বিলাপ’। আমার ধারণা এই ডার্ক থ্রিলারটি গল্পের বিচারে এদেশের অন্যতম জনপ্রিয় একটি সিরিজ হিসেবে দর্শক মনে জায়গা করে নিবে।

শবনম ফারিয়া বলেন, আমি কখনো ওয়েব সিরিজে কাজ করিনি। এটার গল্প শুনার পর মনে হয়েছে যে, আমি এই গল্পের পার্ট হতে চাই।

ওয়েব সিরিজের অপর পরিচালক ফয়সাল আহমেদ জানান, এটি ওয়েব না সিনেমা তা বুঝে উঠতেই দর্শকদের কষ্ট হবে। কারণ কাহিনী, চিত্রনাট্য, অ্যারেঞ্জমেন্টের বিবেচনায় এটি একটি খন্ডিত সিনেমা হিসেবেই আমরা নিমার্ণ করেছি, যার মাঝে দর্শকবৃন্দ সিনেমাটিক আমেজ খুঁজে পাবে।

ওয়েব সিরিজটিতে সিনেমাটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করেছে মিছিল সাহা এবং এতে স্ক্রিপ্ট সুপারভাইজার হিসেবে ছিলেন হাসানাত বিন মতিন। মিঠুন দেবনাথের তত্বাবধানে শুরু হয়েছে সম্পাদনার কাজ।

ওয়েব সিরিজটি প্রযোজনা করেছে টার্ন কমিউনিকেশন্স, যা লাইভ টেকনোলজিসের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। এই ওয়েব সিরিজটি শিগগিরই ওটিটি প্লাটফর্ম ‘সিনেমাটিক’-এ মুক্তি দেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here