ঋষির বর্ণাঢ্য ফিল্ম ক্যারিয়ার

ঋষির বর্ণাঢ্য ফিল্ম ক্যারিয়ার

এপ্রিল ৩০, ২০২০ 0 By বিনোদন২৪.কম

বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা ঋষি কাপুর ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে ৩০ এপ্রিল সকালে মারা গেছেন। ১৯৫২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বলিউডের ‘ফার্স্ট ফ্যামিলি’তে জন্ম ঋষি কাপুরের।

রাজ কাপুর ও কৃষ্ণা রাজ কাপুরের দ্বিতীয় পুত্র ঋষি রাজ কাপুর। অভিনয় দেখেই বড় হয়েছেন। ১৯৫৫ সালে মাত্র তিন বছর বয়সে প্রথমবার পর্দায় দেখা গিয়েছিল ঋষিকে। ‘শ্রী ৪২০’ চলচ্চিত্রে ‘প্যায়ার হুয়া ইকরার হুয়া’ গানের একটি দৃশ্যে। আক্ষরিক অর্থে ঋষি কাপুরের বলিউড ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল ১৯৭০ সালের ছবি ‘মেরা নাম জোকারে’র সঙ্গে।

ছবিতে রাজ কাপুরের ছেলেবেলার চরিত্রে অভিনয় করেন ঋষি। এটাই তার ডেব্যিউ চলচ্চিত্র, যে যাত্রা শেষ হয় ’দ্য বডি’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে। বলিউডের রোমান্টিক হিরো হিসাবেই পথ চলা শুরু করেছিলেন ঋষি।

মাত্র ১৯ বছর বয়সে নায়ক হিসাবে তার জার্নি শুরু ‘ববি’ চলচ্চিত্র দিয়ে। ১৯৭৩ সালে মুক্তি পেয়েছিল ঋষি কাপুর-ডিম্পল কাপাডিয়া অভিনীত এই কালজয়ী ছবি। এই ছবির জন্য ফিল্মফেয়ারের মঞ্চে সেরা অভিনেতার সম্মানও পেয়েছিলেন ঋষি। ঋষি কাপুরের হাসিতে মুগ্ধ ছিলেন সকলে।

সত্তর ও আশির যুগে ‘লায়লা মজনু’, ‘কর্জ’ , ‘প্রেমরোগ’, ‘নাগিনা’, ‘চাঁদনি’, ‘হীনা’, ‘বোল রাধে বোল’, ‘অমর আকবর অ্যান্টনি’, ‘কাভি কাভি’র মতো কালজয়ী সব চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন তিনি। ১৯৮০ সালে অভিনেত্রী নীতু সিংয়ের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন ঋষি কাপুর। বলিউডের অন্যতম হিট অনস্ক্রিন জুটি ছিলেন তারা।

একসঙ্গে ১২টি ছবিতে অভিনয় করেছেন। নব্বইয়ের দশকে ‘দিওয়ানা’, ‘দামিনী’, ‘গুরুদেবে’র মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন ঋষি। ১৯৯৯ সালে ঐশ্বরিয়া-অক্ষয় অভিনীত ‘আ অব লাট চলে’ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেছিলেন তিনি। নতুন শতাব্দীতেও থেমে থাকেনি তার অভিনয় কেরিয়ার। ‘ফনহা’, ‘নমস্তে লন্ডন’, ‘লাভ আজ কাল’, ‘অগ্নিপথে’র মতো ছবিতে অভিনয়ের ছাপ রেখেছেন তিনি। ২০১৮ সালে ‘অমর-আকবর-অ্যান্টনি’র পর অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে ফের একবার জুটি বেঁধেছিলেন।

এই বার বাবা-ছেলের ভূমিকায়। চলচ্চিত্রটির নাম ‘১০২ নট আউট’। পরের বছর মুক্তি পায় ‘দ্য বডি’। এটাই ঋষি কাপুর অভিনীত শেষ ছবি।