আগামীকাল চ্যানেল আইয়ে বাচসাসের জমকালো অনুষ্ঠান

গেলো ৫ এপ্রিল দেশের সবচেয়ে পুরাতন ও ঐতিহ্যবাহী চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের সংগঠন ”বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি” (বাচসাস) পূর্ণ করলো তাদের প্রতিষ্ঠার ৫০ বছর। আর এই ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ৫ এপ্রিল উদযাপন করা হয় ”সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসব”। একইসাথে প্রদান করা হয় বাচসাস পুরস্কার ২০১৪-১৮! তারাময় এই সফল ও জমকালো আয়োজনটি দেখা যাবে চ্যানেল আইয়ের পর্দায় আগামীকাল ২৮ এপ্রিল রবিবার দুপুর ৩টা ৫মিনিটে।

বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের অত্যাধুনিক মাল্টিপারপাস হলে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি। অনুষ্ঠানে কিংবদন্তীতুল্য কবরী আজীবন সন্মাননা তুলে দেন চিত্রনায়ক আলমগীরের হাতে। আলমগীরের প্রথম ছবির নায়িকাও কিন্তু এই মিষ্টি মেয়ে। এর আগে সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবের বিশেষ সন্মাননা বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, সাবিনা ইয়াসমিন ও ফরিদুর রেজা সাগরের হাতে তুলে দেন বাচসাস-এর সভাপতি আবদুর রহমান ও সাবেক দুই সভাপতি রফিকুজ্জামান ও নরেশ ভূঁইয়া।

দেশীয় সিনেমা ও শিল্পী কুশলীদের স্বীকৃতি ও পৃষ্ঠপোষকতার এই আসরে যৌথ প্রযোজনার সিনেমা বিবেচিত হয়নি। এবারের আসরের জুরিমন্ডলীর সভাপতি ছিলেন বিশিষ্ট সাংবাদিক নরেশ ভূঁইয়া। তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি-র সাথে সেরাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবার জন্য নানা সময় মঞ্চে ছিলেন ফিল্ম আর্কাইভ-এর মহাপরিচালক বিধান চন্দ্র কর্মকার, জনপ্রিয় অভিনেত্রী রোজিনা, সংগীতশিল্পী মমতাজ, পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, একসময়ের সাড়াজাগানো শিশুশিল্পী দীঘি।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ছিলো তানজিলের কোরিওগ্রাফিতে উদ্বোধনী নৃত্য। নাচের শেষে মঞ্চে ফুটে উঠে বাচসাস এর সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবের লোগো। নানাভাগে মঞ্চ মাতিয়েছেন আসিফ আকবর, আঁখি আলমগীর, অপু বিশ্বাস, সিয়াম ও পূজা। চলচ্চিত্রে দুই দশকের যাত্রায় শীর্ষতারকা শাকিব খানকে ঘিরে ছিলো একটি আয়োজন। তার গানে নাচের এক সময়ে শাকিব খানকে মঞ্চে নিয়ে যাবার পর শেষ হয় আয়োজন।বাচসাস পুরস্কারের ৩৯তম আসরটি নানাভাগে উপস্থাপনায় ছিলেন প্রেজেন্টার্স প্লাটফর্ম অব বাংলাদেশ(পিপিবি)-এর চারজন শুভেচ্ছাদূত। যথাক্রমে সৈকত সালাহউদ্দিন, শান্তা জাহান, দেবাশীষ বিশ্বাস এবং আনজাম মাসুদ। অনুষ্ঠানের কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন তানজিল আলম ও তার ঈগলস্ ডান্স কোম্পানী। বাচসাস পুরস্কারের ৩৯তম আসরের নিবেদক হিসাবে ছিলো কিউট। আর বাচসাস সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব সহযোগিতায় ছিলো মেরিল মিল্ক সোপ বার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here