অনুষ্ঠিত হলো বাচসাস সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব ও চলচ্চিত্র পুরস্কার

চলচ্চিত্র সাংবাদিকদের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস)। গতকাল শুক্রবার এই সংগঠনটি ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব ও ২০১৪ থেকে ২০১৮—পাঁচ বছরের পুরস্কার প্রদান করেছে।

শুক্রবার সকাল ১১টায় বাচসাসের সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। এরপর ছিল সেমিনার, পোস্টার প্রদর্শনী, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, স্মারক মগ ও স্যুভেনিরের উন্মোচন। বাচসাস সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবের সহযোগিতায় ছিল মেরিল মিল্ক সোপ বার।

এরপর সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নবনির্মিত আর্কাইভ ভবন মিলনায়তনে বাচসাস চলচ্চিত্র পুরস্কার বিতরণের ৩৯তম আসর অনুষ্ঠিত হয়। কিউট নিবেদিত এ অনুষ্ঠানে ছিল সাংস্কৃতিক নানা আয়োজন। অনুষ্ঠানে চলচ্চিত্র শিল্পী ও কলাকুশলীদের হাতে বাচসাস পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

বাচসাস সভাপতি আবদুর রহমান বলেন, ”বাচসাস পুরস্কারের জন্য চলচ্চিত্রের শিল্পী ও কলাকুশলীরা আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করেন। এবারও জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।”

বাচসাস চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানের মঞ্চে পারফর্ম করেন শাকিব খান, অপু বিশ্বাস, সিয়াম ও পূজা। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর, আঁখি আলমগীর প্রমুখ। গানগুলোর নাচের কোরিওগ্রাফি করেন তানজিল। অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন আনজাম মাসুদ, দেবাশীষ বিশ্বাস, সৈকত সালাউদ্দিন ও শান্তা জাহান।

বাচসাসের সুবর্ণজয়ন্তীর এ আসরে এবার আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে কিংবদন্তি চিত্রনায়ক আলমগীরকে। চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য বিশিষ্ট পাঁচ ব্যক্তিকে দেওয়া হয়েছে বাচসাস সুবর্ণজয়ন্তীর বিশেষ সম্মাননা। তারা হলেন সৈয়দ হাসান ইমাম (অভিনয় ও নির্মাণ), কোহিনুর আখতার সুচন্দা (অভিনয়), সাবিনা ইয়াসমিন (সংগীত), মীর্জা আবদুল খালেক (প্রদর্শক) ও ফরিদুর রেজা সাগর (প্রযোজক)।

২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র থেকে নানা শাখায় বাচসাস চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিজয়ীরা হলেন:

বাচসাস পুরস্কার ২০১৪:

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র: দেশা: দ্য লিডার

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা: ফেরদৌস (এক কাপ চা)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী: মাহিয়া মাহি (দেশা : দ্য লিডার)

শ্রেষ্ঠ পরিচালক: সৈকত নাসির (দেশা : দ্য লিডার)

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক: আহম্মেদ হুমায়ূন ( স্বপ্ন ছোঁয়া)

শ্রেষ্ঠ গায়ক: বেলাল খান (অল্প অল্প প্রেমের গল্প)

শ্রেষ্ঠ গায়িকা: লেমিস (অগ্নি)

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: চন্দন রায় চৌধুরী (দেশা : দ্য লিডার)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্রে): তারিক আনাম খান (দেশা : দ্য লিডার)

বাচসাস পুরস্কার ২০১৫:

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র: পদ্ম পাতার জল

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা: আরিফিন শুভ (ছুঁয়ে দিলে মন)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী: বিদ্যা সিনহা সাহা মিম (পদ্ম পাতার জল)

শ্রেষ্ঠ পরিচালক: মোরশেদুল ইসলাম (অনিল বাগচীর একদিন)

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক: শওকত আলী ইমন (ব্ল্যাক মানি)

শ্রেষ্ঠ গায়ক: আসিফ আকবর (পদ্ম পাতার জল)

শ্রেষ্ঠ গায়িকা: এলিটা করিম (পদ্ম পাতার জল)

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: মাহফুজুর রহমান খান ( পদ্ম পাতার জল)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্রে): সাদেক বাচ্চু (লাভ ম্যারেজ)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (পার্শ্ব চরিত্রে ): জ্যোতিকা জ্যোতি (অনিল বাগচীর একদিন)

বাচসাস পুরস্কার ২০১৬:

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র: অজ্ঞাতনামা

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা: চঞ্চল চৌধুরী (আয়নাবাজি)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী: নাবিলা (আয়নাবাজি)

শ্রেষ্ঠ পরিচালক: তৌকীর আহমেদ (অজ্ঞাতনামা)

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক: পিন্টু ঘোষ (অজ্ঞাতনামা)

শ্রেষ্ঠ গায়িকা: সিঁথি সাহা (ভোলাত যায় না তারে)

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: রাশেদ জামান চৌধুরী ( আয়নাবাজি)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্রে): ফজলুর রহমান বাবু (অজ্ঞাতনামা)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (পার্শ্ব চরিত্রে ): মৌসুমী হামিদ (পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেমকাহিনী-২)

জুরি বোর্ডের বিশেষ পুরস্কার: কুমার বিশ্বজিৎ, সংগীত শিল্পী ও সংগীত পরিচালক (সারাংশে তুমি)

বাচসাস পুরস্কার ২০১৭:

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র: রাজনীতি ও ঢাকা অ্যাটাক (যৌথ)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা: শাকিব খান (সত্তা)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী: তিশা (হালদা) ও অপু বিশ্বাস (রাজনীতি)

শ্রেষ্ঠ পরিচালক: হাসিবুর রেজা কল্লোল (সত্তা)

শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক: বাপ্পা মজুমদার (সত্তা)

শ্রেষ্ঠ গায়ক: জেমস (সত্তা)

শ্রেষ্ঠ গায়িকা: মমতাজ (সত্তা)

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: আসাদুজ্জামান মজনু (রাজনীতি)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্রে): আনিসুর রহমান মিলন (রাজনীতি)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (পার্শ্ব চরিত্রে): রুনা খান (হালদা) ও নাসরিন (সত্তা)

বাচসাস পুরস্কার ২০১৮:

শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র: দেবী

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা: সিয়াম (দহন)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী: জয়া আহসান (দেবী)

শ্রেষ্ঠ পরিচালক: অনম বিশ্বাস (দেবী)

শ্রেষ্ঠ গায়ক: ইমরান (নায়ক)

শ্রেষ্ঠ গায়িকা: আঁখি আলমগীর (একটি সিনেমার গল্প)

শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক: সাইফুল শাহীন (পোড়ামন -২)

শ্রেষ্ঠ অভিনেতা (পার্শ্ব চরিত্রে): মিশা সওদাগর (জান্নাত)

শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (পার্শ্ব চরিত্রে): শবনম ফারিয়া (দেবী)

জুরি বোর্ডের বিশেষ পুরস্কার: পূজা চেরী (নবাগত নায়িকা)

জুরিবোর্ডের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন সাংবাদিক ও নির্মাতা নরেশ ভূঁইয়া। বাচসাস সুবর্ণজয়ন্তী ও চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৪-২০১৮ এর ইভেন্ট কো-স্পন্সর ছিল রূপালী ব্যাংক। মিডিয়া পার্টনার চ্যানেল আই। ইভেন্ট সহযোগিতায় ছিল বিডি ফুড লিমিটেড, শতরূপা জুয়েলার্স, দরবার, কার্ণিভাল এয়ার টিকেটিং, ক্রিমসন কাপসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here