কত টাকার মালিক হেমা?

0
43

বলিউডের এক সময়ের ড্রিম গার্ল হেমা মালিনী। বহুদিন হলো অভিনয় জগত থেকে বেশকিছুটা সরে এসে রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন।

উত্তরপ্রদেশের মথুরার বিজেপির সাংসদ তিনি। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনেও মথুরা থেকেই বিজেপির টিকিটে নির্বাচনে লড়ছেন।

ভোটের আগে নির্বাচনী বিধি মেনেই সম্পত্তির খতিয়ান দিয়েছেন হেমা। তাঁর দেয়া হলফনামা অনুসারে গত পাঁচ বছরে হেমা মালিনীর সম্পত্তির পরিমান বেড়েছে ৩৪. ৪৬ কোটি টাকা। যেখানে ৫ বছর আগে ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে হেমা মালিনীর সম্পত্তির পরিমান দেখানো হয়েছিল ৬৬ কোটি টাকা।

তার সেই সম্পত্তির পরিমান ৩৪.৪৬ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০১ কোটি টাকা। হলফনামা অনুসারে বাংলো, গয়না, নগদ সব মিলিয়ে এই পরিমান সম্পত্তি দেখিয়েছেন হেমা মালিনী।

হলফনামায় তার সম্পত্তি বৃদ্ধির যে হিসাব হেমা মালিনী দেখিয়েছেন, সেই অনুসারে ২০১৩ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত সম্পত্তি বেড়েছে ১৫.৯৩ লক্ষ টাকা। ২০১৪ থেকে ১৫ পর্যন্ত তা বাড়ে ৩.১২ কোটি টাকা। ২০১৫ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ১.১৯ কোটি টাকা, ২০১৬ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত ৪.৩০ কোটি টাকা এবং ২০১৭ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত বাড়ে ১.১৯ কোটি টাকা সম্পত্তি বেড়েছে।

হেমামালিনীর দেয়া হলফনামা অনুসারে তাঁর অভিনেতা স্বামী ধর্মেন্দ্রর সম্পত্তির পরিমান ১২৩.৮৫ কোটি টাকা। হলফনামায় তিনি দেখিয়েছেন তাঁর দুটি গাড়ি রয়েছে। যার মধ্যে একটি ২০১১ সালে কেনা ৩৩.৬২ লক্ষ টাকা দামের মার্সেডিজ। অন্যটি ২০০৫ সালে কেনা ৪.৭৫ লক্ষ টাকা মূল্যের টয়োটা। হেমার স্বামী ধর্মেন্দ্রর বেশকিছু পুরনো গাড়ি রয়েছে। যার মধ্যে একটি ১৯৬৫ সালে কেনা ৭০০০ টাকা মূল্যে রেঞ্জ রোভার গাড়ি, একটি মারুতি ৮০০ ও একটি মোটর বাইক।

হেমার দেয়া তথ্য অনুসারে তার জুহুর ভিলে পার্লেতে কেনা একটি বাংলো আছে এবং জুহুতে একটি জমিও কেনা রয়েছে। হেমার দেখানো শিক্ষাগত যোগ্যতা অনুসারে তিনি ম্যট্রিকুলেশন পাশ করার পর নাচ শেখা শুরু করেন। পাশাপাশি পড়াশোনাও চালিয়ে যান। ২০১২ সালে পিএইচডি কমপ্লিট করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here