‘সর্বনাশা ইয়াবা’ নিয়ে বললেন কাজী মারুফ

0
80

দেশীয় ছবির গুণী নির্মাতা কাজী হায়াৎ ‘সর্বনাশা ইয়াবা’ নামে একটি ছবির নির্মাণ করেছিলেন। ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৪ সালে ১৪ নভেম্বর । আর সেই সিনেমায় একজন সাহসী পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয় করেন ইতিহাস খ্যাত নায়ক কাজী মারুফ।

ছবির গল্পে দেখা যায় একটা সময় মারুফের ছোটবোন ইয়াবা আসক্ত হয়ে পড়েন। সব জানার পর মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন মারুফ।

বর্তমান সময়ে চলা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিচালিত মাদকবিরোধী অভিযানের সঙ্গে নিজের অভিনীত সেই ছবির সামঞ্জস্য খুঁজে পান বলে জানিয়েছেন কাজী মারুফ। তিনি বলেন, ‘২০১৪ সালে বাংলাদেশে একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলাম। যার নাম ছিল ‘সর্বনাশা ইয়াবা’। আমার বাবা কাজী হায়াৎ ছিলেন ছবিটির নির্মাতা।’

কাজী মারুফ আরও বলেন, ‘চলচ্চিত্রে পরিচালক আমাকে দিয়ে যা করিয়েছিলেন, এখন ঠিক তাই ঘটছে। এখন মাদকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রচেষ্টা চলছে, খুব ভালো লাগছে। আমরা চেয়েছি ২০১৩ সালে, ২০১৪ সালে সেটা পর্দায় দেখিয়েছি। আর ২০১৮ সালে সেটা হচ্ছে।’

কাজী মারুফ বলেন, ‘হয়তো অভিনয় বা নির্মাণ ভালো হয়নি বিধায় কোনও পুরস্কারে ভূষিত হয়নি চলচ্চিত্রটি। কিন্তু আজ আমি অনেক খুশি, মনে হচ্ছে আমরা বোধ হয় পথপ্রদর্শক ছিলাম।’

ছবিতে মারুফের নায়িকা হিসেবে ছিলেন প্রসূন আজাদ। সেসময় ছবিটির নায়িকা প্রসূন আজাদ অভিযোগ করেন পরিচালক তাকে কোনও পারিশ্রমিক দেননি। অন্যদিকে মারুফ দাবি করেন পারিশ্রমিক নিয়ে কোনও চুক্তি সাইন হয়নি কোনও কিছু দেয়ার কথাও ছিল না। তারপরেও তারা একটি অংক নায়িকা প্রসূনকে দিয়েছিলেন। পরবর্তীতে এ নিয়ে এফডিসিতে দেন দরবার হয়। অবশেষে সব কিছুর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন প্রসূন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here