আজ নায়করাজ রাজ্জাকের ৭৭তম জন্মদিন

আজ ২৩ জানুয়ারি দেশীয় চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন। বেঁচে থাকলে আজ তিনি পা দিতেন ৭৭ বছরে। নায়করাজের জন্মদিনকে ঘিরে চলচ্চিত্রাঙ্গনসহ শোবিজের নানা অঙ্গনে রয়েছে বর্ণিল আয়োজন। ব্যক্তিগতভাবে তো বটেই নানা সাংস্কৃতিক-চলচ্চিত্র বিষয়ক সংগঠনগুলোও ভালোবাসায় আজ সিক্ত করবেন প্রিয় নায়ককে। এবারই প্রথম চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি নায়করাজকে ছাড়া তার জন্মদিন পালন করবে।

তবে তাকে ঘিরে তার দীর্ঘদিনের কর্মস্থল এফডিসিতে থাকবে বর্ণিল আয়োজন। নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন উপলক্ষে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির পক্ষ থেকে আজ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। তাদের আয়োজনে বেলা ১১টায় এফডিসির মান্না ডিজিটালের সামনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। যাতে নায়ক রাজের সহকর্মী, সিনিয়র শিল্পী ও পরিচালকরা এতে অংশ নেবেন। আলোচনা সভা শেষে তাঁর আত্মার মাগফেরাতের জন্য দোয়া মাহফিলের আয়োজনও রয়েছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি নায়করাজ রাজ্জাকের জন্মদিন পালন করবে কেক কেটে। পাশাপাশি থাকবে দোয়া মাহফিলেরও আয়োজন। এদিকে রাজ্জাকের পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া মাহফিল ও এতিমদের ভোজনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। জানা গেছে,সকালে পরিবারের সদস্যরা মিলে তাঁর কবর জেয়ারত করবেন। বাদ-যোহর এতিম ও গরিবদের ভোজনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাদ-আসর গুলশান আজাদ মসজিদে দোয়া মাহফিলের আয়োজন রয়েছে। এছাড়া দিনব্যাপী বাসায় পরিবারের সদস্যরা কোরআন খতম করবে।

১৯৪২ সালের ২৩ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন রাজ্জাক। জন্ম কলকাতার টালিগঞ্জে হলেও দেশভাগের সময় তিনি পরিবারের সঙ্গে ঢাকায় পাড়ি জমান। নায়ক হিসেবে চলচ্চিত্রে নায়করাজের যাত্রা শুরু হয় জহির রায়হানের “বেহুলা” ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। এতে তার বিপরীতে ছিলেন কোহিনূর আক্তার সুচন্দা।প্রযোজক হিসেবে নায়করাজের যাত্রা শুরু “রংবাজ” ছবিটি প্রযোজনার মধ্য দিয়ে। এটি পরিচালনা করেছিলেন জহিরুল হক। রাজ্জাকের বিপরীতে ছিলেন কবরী। ববিতার সঙ্গে জুটি বেঁধে নায়করাজ প্রথম নির্দেশনায় আসেন “অনন্ত প্রেম” চলচ্চিত্র দিয়ে। নায়ক হিসেবে এ অভিনেতার সর্বশেষ চলচ্চিত্র ছিল শফিকুর রহমান পরিচালিত “মালামতি”। এতে তার বিপরীতে ছিলেন নূতন। নায়করাজ রাজ্জাক সর্বশেষ তার বড় ছেলে নায়ক বাপ্পারাজের নির্দেশনায় “কার্তুজ” চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এই চলচ্চিত্রে তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু প্রয়াত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলামও অভিনয় করেছিলেন। চাষী নজরুল ইসলামের প্রথম চলচ্চিত্র “ওরা ১১ জন” চলচ্চিত্রেও রাজ্জাক অভিনয় করেছিলেন।

অন্যদিকে নায়করাজ সর্বশেষ ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত “আয়না কাহিনী” চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছিলেন। এই চলচ্চিত্রে জুটি হিসেবে অভিনয় করেছিলেন সম্রাট ও কেয়া। এরপর আর নতুন কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণে তাকে দেখা যায়নি। উল্লেখ্য,গেল বছরের ২১ আগস্ট পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন নায়করাজ রাজ্জাক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here