মিশার দুঃখ প্রকাশ, পদত্যাগের সিদ্ধান্তে অটল মৌসুমী

0_Wed13052015000830_mousumi15.jpg

গুণী অভিনেত্রী মৌসুমীকে ‘বয়স্ক’ বলে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হয়েছেন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর। মৌসুমীর স্বামী ও চিত্রনায়ক ওমর সানী ফেসবুক লাইভে এসে মিশার তুমুল সমালোচনা করেন। এবার একই ছবি ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’-এ অভিনয় করতে যাচ্ছেন তারা। একসঙ্গে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে হবে মৌসুমী ও মিশাকে। শুটিং স্পটে ছিলেন ওমন সানীও। ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল। তার মধ্যস্থতায় গেলো মঙ্গলবার ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবির শুটিং স্পটে নিজের অনিচ্ছাকৃত মন্তব্যের জন্য মৌসুমীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন মিশা সওদাগর। শুধু তাই না এ সময় তিনি মৌসুমীকে পদত্যাগ পত্র প্রত্যাহার করে ফের চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতে ফিরে আসার জন্য অনুরোধ করেন। তবে মৌসুমী এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত জানাননি। তবে মৌসুমী কিছু না বললেও তার স্বামী ওমর সানী বলেছেন, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সঙ্গে আমার পরিবার সব সময় ছিল এবং ভবিষ্যতে। তবে বর্তমান কমিটিতে আমার পরিবার থাকবে না, এটা পরিষ্কার। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যপদে জয়ী হয়েছিলেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। কিন্তু নির্বাচনের পর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করেননি। ক’দিন আগে কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যপদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে এ অভিনেত্রী শিল্পী সমিতির সভাপতি বরাবর আবেদন করেন। অব্যাহতিপত্রে মৌসুমী লিখেছিলেন, ব্যক্তিগত কারণে তিনি তার পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। গেলো ৫ মে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুই বছর মেয়াদি কমিটির নির্বাচনে মৌসুমী কার্যনির্বাহী সদস্যপদে জয়ী হন। তিনি ছিলেন ওমর সানী-অমিত হাসান প্যানেলের প্রার্থী। নির্বাচনে ওমর সানী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন সমিতির সভাপতি পদের জন্য। কিন্তু সেই পদে জয়ী হন মিশা সওদাগর।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin