ফারুক আপনি জিতেছেন

sultana

ফুলের চাষ শিখতে গিয়ে বাগানের মালিকের ফুলের মতো সুন্দরী মেয়ে সোনালির প্রেমের জালে ধরা পড়ে সুলতান। ঘটনার এক পর্যায়ে মেয়েটিও সম্মতি দেয়। জমজমাট প্রেমে বাধা হয়ে দাঁড়ায় মেয়েটির বাবা (মামুনুর রশীদ)। একটা পর্যায়ে খুন হয় সোনালির বাবা। খুনের দায়ে ফেরারি হয় সুলতান। সেখান থেকে শুরু হয় নতুন এক গল্পের। আর সেই না বলা গল্পটুকু তোলা থাক প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি দেখার জন্য। সমুদ্রে নিখোঁজ হওয়া চিত্রনাট্যকার ফারুক হোসেনের কাহিনি, চিত্রনাট্য ও সংলাপে ছবিটি পরিচালনা করেছেন তরুণ নির্মাতা হিমেল আশরাফ। গ্রামীণ সহজ সরল প্রেমের গল্পের ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ ছবিতে অভিনয় করেছেন ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় জুটি আঁচল-বাপ্পী। পুরো ছবির শুটিং হয়েছে গোলাপ বাগানে। দেশীয় সিনেমায় ফুল চাষ কিংবা ফুল বাগানের গল্প আগে কখনো দেখা যায়নি। আর এই সুন্দর বাগানের জন্যই সিনেমা দেখার সময় চোখে লেগেছে এক অনাবিল প্রশান্তি। মনে হয়েছে এই তো আমার বাংলাদেশ ফুলের মতোই সুন্দর। ভালো ছবি নির্মাণের জন্য সুইজারল্যান্ড যেতে হয় না। কাদামাখা গ্রামেও সুন্দর ছবি তৈরি করা যায়। তার জন্য লাগে ভালো গল্প, অভিনয়শিল্পী ও মেধাবী পরিচালক। বাপ্পীর অভিনয় মুগ্ধ করেছে। ছবিটি দেখার পর চোখে লেগে থাকবে আঁচলের সৌন্দর্য্য। তিনি একজন ভালো অভিনেত্রী তা আবারো প্রমাণ করলেন আঁচল। ৩১ মার্চ মুক্তি পাওয়া ছবিটি দেখার জন্য হলগুলোতে দর্শকও বাড়ছে। বলাই যায়, অনেকদিন পর একটা মৌলিক গল্পের ছবি দেখা গেছে।

Facebooktwittergoogle_pluspinterestlinkedin